বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট বা অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপন

ভারতবর্ষে ম্যাক্স হাসপাতাল, যেসব রোগীদের বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টের প্রয়োজন যেমন লিউকেমিয়া ব্লাড ​​ক্যান্সার, মাল্টিপল মেলোমা এবং সিকেল সেল অ্যানিমিয়া, অ্যাপ্লাস্টিক অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা বা থ্যালাসেমিয়ার মতো গুরুতর রক্তের রোগ রয়েছে তাদের জন্য ব্যতিক্রমী চিকিৎসা পরিষেবা সরবরাহ করে।

রোগের প্রকারভেদ -

সব ধরনের ব্লাড ​​ক্যান্সারের ক্ষেত্রে বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টের প্রয়োজন। রেডিয়েশন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ক্যান্সারজনিত কোষগুলি ধ্বংস হওয়ার পরে শরীরে নতুন রক্তকণিকা প্রবেশ করানোর প্রক্রিয়া সাফল্যতার সাথে বেড়েছে। বোন ম্যারো বা অস্থি মজ্জাতে যে ধরনের রোগগুলি হয় তা নিম্নলিখিত।
  1. হজকিন লিম্ফোমা এবং নন-হজকিন লিম্ফোমা
  2. মেলোমা
  3. লিউকেমিয়া
  4. থ্যালাসেমিয়া
  5. অ্যাপ্লাস্টিক অ্যানিমিয়া
  6. ক্রনিক মাইলয়েড লিউকেমিয়া
  7. রিল্যাপ্সড অ্যাকিউট লিম্ফয়েড লিউকেমিয়া
  8. ফলিকুলার লিম্ফোমা, মেলোমা এবং ক্রনিক লিম্ফয়েড লিউকেমিয়া

ডায়াগনস্টি‌ক পরীক্ষা -

অস্থি মজ্জা বিশ্লেষণ এবং প্রতিস্থাপনের আগে নির্দিষ্ট কিছু পরীক্ষা বাধ্যতামূলক, যার মধ্যে রয়েছে অনেক ধরনের ব্লাড টেস্ট, বুকের এক্স-রে, হার্ট টেস্ট, PET স্ক্যান এবং অস্থি মজ্জার বায়োপসি। দাতা এবং গ্রহীতার মধ্যে বোন ম্যারো টিস্যুর সামঞ্জস্যতা মূল্যায়নের জন্য টিস্যু টাইপিং করা হয়। দাতাদের কোন সংক্রামক রোগ এবং অন্যান্য যদি চিকিৎসাজনিত সমস্যা থেকে থাকে তাহলে তাদেরকেও নিখুঁতভাবে পরীক্ষা করা হয়।
  1. রক্ত পরীক্ষা - সম্পূর্ণ মেটাবোলিক প্যানেল টেস্ট, হিমোগ্লোবিন সলুবিলিটি বা দ্রবণীয়তা, রক্তপাতের সময় এবং জমাট বাঁধার সময়, ABO সামঞ্জস্যতা, প্যানেল পরীক্ষা হিমোগ্লোবিন সলুবিলিটি বা দ্রবণতা রক্তপাত সময় এবং জমাট বাঁধার সময়, ABO সামঞ্জস্যতা, টোটাল ব্লাড কাউন্ট এবং পার্থক্যমুলক গণনা, এবং প্লেটলেট গণনা
  2. বুকের এক্স-রে:ফুসফুসের সংক্রমণ এবং রোগের উপস্থিতি নির্ণয় করা।
  3. পালমোনারি ফাংশন বা ফুসফুসের কার্যকারিতা পরীক্ষা - ফুসফুসের ভূমিকা এবং ক্ষমতা পরিমাপ করার জন্য।
  4. PET (পজিট্রন এমিশন টমোগ্রাফি) স্ক্যান -শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ এবং টিস্যুগুলির কার্যকারিতা সনাক্ত করার জন্য।
  5. অস্থি মজ্জার বায়োপসি -এই রোগের সাথে জড়িত সূত্রের পরিমাণ নির্ধারণ করার জন্য পরিচালনা করা হয়।

চিকিৎসা-

রক্তের ক্যান্সার যেমন লিউকেমিয়া, মেলোমা এবং লিম্ফোমা কেমোথেরাপির মাধ্যমে চিকিৎসা করা হয় যাতে ক্যান্সার কোষগুলি ধ্বংস হয়। তার পরে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসার পদ্ধতি হল বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট বা অস্থি মজ্জা প্রতিস্থাপন।

বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টের প্রকারভেদ -

  1. অ্যালোজেনিক:এই প্রক্রিয়ায় দাতার কাছ থেকে স্বাস্থ্যকর ব্লাড স্টেম ব্যবহার করা হয় এবং সেই ব্যক্তিকে অবশ্যই পরিচিত বা গ্রহীতার পরিবারের সদস্য হতে হবে।
  2. অটোলজাস: এই প্রক্রিয়ার সময়, রোগাক্রান্ত কোষগুলি অপসারণ করার জন্য রোগীর শরীর থেকে সুস্থ এবং স্বাস্থ্যকর ব্লাড স্টেম ব্যবহার করা হয়।
রোগী প্রতিস্থাপনের জন্য উপযুক্ত কিনা তা নিশ্চিত করার পরে, ডাক্তার ঘাড় বা বুকে একটি কেন্দ্রীয় রেখা রাখেন। এই লাইনটি পুরো প্রতিস্থাপনের মধ্যেই থাকে। প্রতিস্থাপনের আগে রোগীর শরীরে ক্যান্সার কোষগুলিকে ধ্বংস করে ফেলার জন্য এবং নতুন স্টেম সেলগুলির জন্য জায়গা করে দেওয়ার জন্য কেমোথেরাপি এবং রেডিয়েশন থেরাপির প্রয়োজন। দাতা এবং গ্রহীতা জিনগতভাবে কতটা ঘনিষ্ঠ তার উপরে ট্রান্সপ্ল্যান্ট বা প্রতিস্থাপনের সাফল্যতা নির্ভর করে। প্রাথমিক ক্রিয়াকলাপের পরে কমপক্ষে ২ থেকে ৪ সপ্তাহের জন্য অভ্যন্তরে স্থাপন করার অবস্থা নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করা হয়। এটি রোগের পর্যায়, রোগের সময়কাল এবং প্রতিস্থাপনের সময় রোগীর শারীরিক অবস্থার উপর নির্ভর করে। ভারতবর্ষের ম্যাক্স হাসপাতালে, বিএমটি বা বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টের ১০০% সাফল্যের জন্য বেশ কয়েকজন সেরা এবং অভিজ্ঞ অস্থি মজ্জা বিশেষজ্ঞ এবং উন্নতমানের পরিকাঠামো রয়েছে। বিএমটি পদ্ধতির জন্য নেগেটিভ প্রেসার এবং এমইপিএ (MEPA) ফিল্টারের প্রয়োজন যা ম্যাক্স হাসপাতাল রোগীদের সরবরাহ করে।

এপিলেপসি বা মৃগীরোগ সংক্রান্ত কিছু জানার বিষয়

সচরাচর জিজ্ঞাসা করা হয় এমন প্রশ্নাবলী

আপনাদের হাসপাতাল কি উন্নতমানের পরিষেবার জন্য আন্তর্জাতিকভাবে প্রত্যয়িত?

আমরা ভারতবর্ষের মধ্যে বিস্তীর্ণ এবং বিরামহীনভাবে বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করে থাকি। গোটা ভারতবর্ষে আমাদের ১৪টি অত্যাধুনিক হাসপাতাল সহ একটি সুবিশাল নেটওয়ার্ক রয়েছে, যার মধ্যে আমরা ২৯ ধরনের চিকিৎসা বিভাগে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে সর্বোৎকৃষ্ট চিকিৎসা পরিষেবা প্রদান করে থাকি। আমাদের হাসপাতালে নিজের কাছে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এবং আন্তর্জাতিক স্তরের দক্ষতা সম্পন্ন ২৩০০ এরও বেশি শীর্ষস্থানীয় চিকিৎসক রয়েছেন, যারা আন্তর্জাতিক ব্যয়ের একটি খুব কম অংশে শ্রেষ্ঠ এবং সর্বোচ্চ মানের চিকিৎসা প্রদান করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ম্যাক্স হসপিটাল তার সুপার-স্পেশালিটি (অত্যাধুনিক) সুবিধার জন্য এবং রোগীদের উচ্চমানের পরিষেবা দেওয়ার জন্য আইএসও (ISO) অনুমোদন এবং এনএবিএইচ (NABH) স্বীকৃতি লাভ করেছে।

আমি নিশ্চিত হতে পারছি না আমি ভারতীয় খাবার খেতে পারব কিনা? এবং আমার একটি নির্দিষ্ট ধরনের পছন্দের খাদ্যতালিকা রয়েছে। আমি কিভাবে মানিয়ে চলতে পারব?

ম্যাক্স হাসপাতাল আপনার খাবারের পছন্দগুলি যত্ন নেবে। আমাদের একটি দল রয়েছে যা আপনার প্রয়োজনীয়তা দেখাবে।

অন্য দেশে যাওয়ার আগে আমাকে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের সাথে কথা বলতে হবে। এটা কি সম্ভব?

হ্যাঁ অবশ্যই। আপনাকে কেবল আপনার প্রয়োজনীয় তথ্যের ফর্মটি প্রথমে পূরণ করতে হবে, বাকি সমস্ত কিছু ম্যাক্স হাসপাতালের কর্মীবৃন্দ যত্ন নেবেন।